জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার নিয়ম

আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক ও জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড বা অনলাইন কপি ডাউনলোড করার জন্য...

প্রত্যেক বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক। এবং বর্তমানে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ বিভিন্ন ধরনের কাজে প্রয়োজন হয়। আপনি এখন সহজেই  জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক এবং জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করণ পদ্ধতি নিয়ে সাজানো হয়েছে এই পোস্টটি।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক | জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড

আপনি যদি জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক বা যাচাই ব্যবস্থা সম্পর্কে না জেনে থাকেন তাহলে পড়তে থাকুন জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি ডাউনলোড করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম খুব সহজ। জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক এবং জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে যা যা জানতে হবে তা হলোঃ

  • জন্ম নিবন্ধন নম্বর
  • জন্ম তারিখ

এই দুটি জিনিস জানলেই আপনি জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক এবং ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক করতে হলে প্রথমে আপনাকে বাংলাদেশ সরকারের অনলাইন জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট bdris এ প্রবেশ করতে হবে। Online bdris ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করতে এই লিংকটি https://everify.bdris.gov.bd আপনার ব্রাউজারে ওপেন করতে হবে, তাহলে নিচের মত পেইজ আসবে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক

এরপর প্রথম ঘরে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর প্রবেশ করান। এরপর দ্বিতীয় ঘরে ঐ ব্যক্তির জন্ম তারিখ প্রবেশ করান (উদাহরণ- 19860915428117351)। উপরের চিত্রে দেখুন কীভাবে জন্ম তারিখ প্রবেশ করাতে হবে।

মনে রাখবেন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার সময় জন্ম তারিখ লেখার সময় তারিখের বিন্যাস হবে YYYY-MM-dd মানে 1996-10-21 এভাবে। অর্থাৎ শুরুতে বছর এরপর মাস এরপর দিন লিখতে হবে।

এরপর একটি ক্যাপচা পূরন করে Search বাটনে ক্লিক করে জন্ম নিবন্ধন অনুসন্ধান করলেই আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখতে পারবেন। এভাবেই আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করতে পারবেন।

everify.bdris.gov.bd birth certificate


যদি Search বাটনে ক্লিক করার পর No Record Found লেখাটি দেখতে পান তাহলে বুঝবেন যার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে চাচ্ছেন তার জন্ম নিবন্ধনের নাম্বার ও জন্ম তারিখ এ দুটির মধ্যে কোথাও ভুল রয়েছে।

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড 

আপনি যদি উপরে দেখানো নিয়ম অনুসারে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই করতে পারেন, তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল।

everify.bdris.gov.bd থেকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে, আপনার জন্ম সনদপত্র আপনার স্ক্রিনে প্রদর্শিত হওয়ার পরে, আপনি প্রিন্ট কমান্ড (ctrl + P) দিয়ে আপনার কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট টু পিডিএফ (PDF) নির্বাচন করে এটি একটি PDF ফাইল হিসাবে সংরক্ষণ করতে পারেন। আর যদি আপনার কম্পিউটারে Print to PDF অপশন না থাকে তাহলে আপনার কম্পিউটার এ প্রিন্টার থাকলে, আপনি জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপিটি প্রিন্ট করে নিতে পারেন এবং ভবিষ্যতের জন্য সংরক্ষণ করতে পারেন। এভাবে কম্পিউটারে birth certificate জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারেন।

আর যদি আপনি মোবাইলে online bris এর ওয়েবসাইট থেকে jonmo nibondhon online copy download জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করে রাখতে চান তাহলে যাচাই করার পর একটি স্ক্রিনশট দিয়ে রেখে দিন। এছাড়া জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার আলাদা কোনো উপায় নেই এখন পর্যন্ত।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার নিয়ম | jonmo nibondhon songsodhon

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার পরে যদি দেখতে পান আপনার ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদে কোন তথ্যে ভুল রয়েছে, তাহলে দ্রুত তা সংশোধনের জন্য আবেদন করে সংশোধন  করে ফেলুন। কারণ জন্ম সনদপত্রে ভুল থাকলে তা পরবর্তীতে বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে।

বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা ঝামেলাপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে, আপনি https://bdris.gov.bd/br/correction ওয়েবসাইটে গিয়ে সেখানে দেওয়া নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন jonmo nibondhon songsodhon করার আবেদন করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন যাচাই করার নিয়ম

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য আবেদন করার পরে জন্ম সনদ সংশোধন হয়েছে কিনা তা যাচাই করতে পারবেন অনলাইন থেকেই। bdris.gov.bd check করবেন কিভাবে?

সাধারণভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করার মতো প্রথমে - everify.bdris.gov.bd এ যান। তারপর আপনি জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন অনুসন্ধান করুন। সংশোধন করা হলে, আপনি পর্দায় সংশোধিত তথ্য দেখতে পাবেন। আপনি চাইলে আপনার মোবাইলেও চেক করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার নিয়ম

অনেকের জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে বাংলা সংস্করণে থাকলেও ইংরেজি সংস্করণে থাকে না। তাই জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার জন্য জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হয়। জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার জন্য নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুন।

প্রথমে জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন https://bdris.gov.bd/  জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন মেন্যুতে ক্লিক করুন।

  • নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার জন্ম নিবন্ধন বের করুন।
  • আপনি যে ইউনিয়ন বা পৌরসভায় জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন সেই নিবন্ধন কার্যালয়ের ঠিকানা বাছাই করুন।
  • তারপর ইংরেজি তথ্যসমূহ যুক্ত করুন ঠিকানা তথ্যসমূহ ইংরেজিতে লিখুন।
  • আবেদনকারীর তথ্য প্রদান করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।

শুধুমাত্র নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই

অনলাইনে everify.bdris.gov.bd থেকে শুধুমাত্র নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করা যায় না তবে, ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনে শুধুমাত্র নামের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার সুযোগ রয়েছে।

এছাড়া যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন birth certificate হারিয়ে যায় অথবা নিবন্ধন নাম্বার জানা না থাকে তাহলে আপনার নিকটবর্তী ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে আপনার নাম সার্চ করে নিবন্ধন নম্বরটি জেনে নিতে পারেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন তথ্য না পাওয়ার কারণ

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন তথ্য না পাওয়ার সম্ভাব্য কারণ হতে পারে, যদি আপনার জন্ম 01/01/2001 এর পূর্বে হয়ে থাকে তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধন টি অনলাইন bdris এর ডাটাবেজে নেই।

যদি এমন সমস্যা হয় তাহলে সমাধান করার জন্য আপনাকে নতুনভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে হবে। নতুন জন্ম নিবন্ধন রেজিস্টার করুন এখানে https://bdris.gov.bd/br/application

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সকল লিংক

এখানে জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক করা, আবেদন করা, সংশোধন করা ইত্যাদি করার জন্য সমস্ত লিংক দেওয়া হয়েছে। পূর্বে br.lgd.gov.bd ওয়েবসাইট থেকে সকল কাজ করা গেলেও বর্তমানে 2022 সালে তা আর করা যায় না বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত সকল কাজ করা হয় bdris.gov.bd থেকে। সকল লিংক নিচে দেওয়া হলোঃ

জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট: https://bdris.gov.bd

যাচাই এবং অনলাইন কপি ডাউনলোড: https://everify.bdris.gov.bd

অনলাইন আবেদন: https://bdris.gov.bd/br/application

আবেদন পত্র প্রিন্ট: https://bdris.gov.bd/application/print

তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন: https://bdris.gov.bd/br/correction

সনদ পুনরায় মুদ্রন: https://bdris.gov.bd/br/reprint/add

আবেদনের বর্তমান অবস্থা চেক: https://bdris.gov.bd/br/application/status

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম | জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন ২০২২

অনেকের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা থাকে না এর জন্য bdris.gov.bd থেকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে হয়। jonmo nibondhon abedon অনলাইনে আবেদন করতে প্রথমে আপনাকে এই লিংকে https://bdris.gov.bd/br/application যেতে হবে তারপর নিচে দেওয়া ধাপ গুলো অনুসরণ করে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে পারবেন।

ধাপ ১ঃ জন্ম নিবন্ধন আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ

ধাপ ২ঃ নিবন্ধনকারী ব্যক্তির পরিচিতি ও জন্মস্থানের ঠিকানা প্রদান

ধাপ ৩ঃ পিতা ও মাতার তথ্য প্রদান

ধাপ ৪ঃ স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা প্রদান

ধাপ ৫ঃ আবেদনকারীর তথ্য প্রদান করা

এভাবেই আপনি আপনার birth certificate জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে পারবেন।

এক ব্যক্তি একাধিকবার জন্ম নিবন্ধন করতে পারবে কি?

বাংলাদেশ জন্ম নিবন্ধন আইন অনুযায়ী, এক ব্যক্তি একাধিকবার জন্ম নিবন্ধন করতে পারবে না। একাধিকবার জন্ম নিবন্ধন করা দণ্ডনীয় অপরাধ। জন্ম নিবন্ধন এ কোন ভুল থাকলে নতুন করে না করে সেটি jonmo nibondhon songsodhon সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারেন।

Online Bris | জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদনের বর্তমান অবস্থা

আপনি যদি online bris live থেকে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ করে থাকেন তাহলে আবেদনের বর্তমান অবস্থা দেখার জন্য আপনাকে এই লিংকে https://bdris.gov.bd/br/application/status যেতে হবে তারপর আপনার জন্ম নিবন্ধন এর অ্যাপ্লিকেশন আইডি এবং জন্ম তারিখ প্রদান করে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদনের বর্তমান অবস্থা জানতে পারবেন।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই ওয়েবসাইটে কি কি তথ্য দেওয়া থাকে?

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করণ ওয়েবসাইটে online bris এ যে ব্যক্তির জন্ম নিবন্ধন চেক করা হয়েছে তার সম্পুর্ন জন্ম সনদপত্র অর্থাৎ সেই ব্যক্তির নাম, ঠিকানা, পিতামাতার নাম, লিঙ্গ, জাতীয়তা রয়েছে। জন্ম সনদ কখন তৈরি করা হয়েছিল এবং কোথা থেকে জন্ম সনদ তৈরি করা হয়েছিল সে সম্পর্কেও আপনি তথ্য পাবেন।

যদি আপনি অনলাইনে আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করেন, তাহলে আপনি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাইকরণ ওয়েবসাইটে আজ পর্যন্ত আপনার বয়স কত বছর, কত মাস এবং কত দিন এই ধরনের তথ্যও দেখতে পাবেন।

ইউনিয়ন পরিষদ জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড | আসল জন্ম নিবন্ধন দেখব কিভাবে?

অনলাইনে আসল জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করা যায় না। আসল জন্ম নিবন্ধন দেখার জন্য আপনি যে ইউনিয়ন পরিষদ বা কাউন্সিলরের অফিসে থেকে জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন, সেখানে যোগাযোগ করতে হবে সেখানে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড PDF কিভাবে করব?

আপনি খুব সহজেই https://everify.bdris.gov.bd থেকে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন। jonmo nibondhon online check জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করার পর, আপনার জন্ম সনদপত্র আপনার স্ক্রিনে প্রদর্শিত হওয়ার পরে, আপনি প্রিন্ট কমান্ড (ctrl + P) দিয়ে আপনার কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট টু পিডিএফ (PDF) নির্বাচন করে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করে PDF ফাইল হিসাবে সংরক্ষণ করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps কোনটি?

আপনি যদি জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps খুজে থাকেন। তাহলে জেনে রাখুন সরকারি ভাবে এরকম কোন অ্যাপস নেই। যে সকল অ্যাপস রয়েছে সেগুলো শুধু মাত্র everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইটি দেখায়। তাই জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps না খুঁজে সরাসরি https://everify.bdris.gov.bd থেকে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক করতে পারেন।

১৬ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন নম্বর কিভাবে ১৭ সংখ্যার করা যায়?

সাধারণত বর্তমানে সকল জন্ম সনদপত্র ১৭ ডিজিট বা সংখ্যার হয়ে থাকে, তবে পুরাতন জন্ম নিবন্ধন ১৬ সংখ্যার হয়ে থাকে। ১৬ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করা যায় না। ১৬ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন ১৭ টি সংখ্যা করতে, আপনি নিবন্ধন নম্বরের শেষ পাঁচটি সংখ্যার আগে একটি শূন্য বসিয়ে অথবা আপনি প্রথম এগারো টি সংখ্যার পরে একটি শূন্য বসিয়ে ১৭ টি সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে গেলে কি করব?

আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন সার্টিফিকেট হারিয়ে ফেলেন, চিন্তা করবেন না! আপনি আপনার ১৭ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্মতারিখ দিয়ে bdris.gov.bd-এ অনলাইনে পুনর্মুদ্রণের জন্য আবেদন করতে পারেন। অথবা, আপনি everify.bdris.gov.bd থেকে একটি কপি ডাউনলোড করতে পারেন। 

আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর না জানেন, তাহলে আপনি আপনার নিবন্ধকের অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই 19860915428117351 কিভাবে করব?

জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করার নিয়ম এই পোস্ট এ দেওয়া হয়েছে। এখানে জন্ম নিবন্ধন নম্বরঃ 19860915428117351 তাই জন্মনিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক করার জন্য bdris ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করে জন্ম নিবন্ধন যাচাই yyyy mm dd জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই 19860915428117351 করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন ফি কত টাকা?

বয়স এবং কাজ অনুযায়ী জন্ম নিবন্ধন ফি এর পরিমাণ নিচে দেওয়া হল:

আপনার সন্তানের বয়স ৪৫ দিনের কম হলে আপনাকে জন্ম নিবন্ধন ফি দিতে হবে না।

  • বয়স ৪৫ দিন থেকে ৫ বছরের মধ্যে হলে, ফি ২৫ টাকা।
  • বয়স ৫ বছরের বেশি হলে ফি ৫০ টাকা।
  • জন্ম সনদে জন্ম তারিখ সংশোধন করার ফি ১০০ টাকা।
  • জন্ম নিবন্ধনের অন্য কোনো তথ্য সংশোধনের প্রয়োজন হলে, ফি ৫০ টাকা।
  • আপনি এটি সংশোধন করার পরে জন্ম নিবন্ধনের একটি বিনামূল্যে কপি পেতে পারেন।
  • বাংলা ও ইংরেজিতে জন্ম সনদের কপি ফি ৫০ টাকা।

জন্ম নিবন্ধন সনদ কি কি কাজে লাগে?

জন্ম নিবন্ধন ব্যাক্তির ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবনে বিভিন্ন কাজে দরকার হয় যেমনঃ

  • বিবাহ নিবন্ধন
  • পাসপোর্ট ইস্যু
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি
  • ব্যাংক একাউন্ট খোলা
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু
  • ভোটার তালিকা প্রণয়ন
  • জমি রেজিষ্ট্রেশন
  • বাড়ির নক্সা অনুমোদন প্রাপ্তি
  • গ্যাস, পানি, টেলিফোন ও বিদ্যুৎ সংযোগ প্রাপ্তি
  • ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (টিআইএন) প্রাপ্তি
  • ঠিকাদারী লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্তি
  • সরকারী, বেসরকারী বা স্বায়ত্বশাসিত সংস্থায় নিয়োগদান
  • ট্রেড লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • আমদানি ও রপ্তানী লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তি।

পরিশেষ

আশা করি আপনার এই পোস্টটি ভালো লাগছে। উপরের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে, আপনি সহজেই একটি জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন, অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন, বা অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন।

Getting Info...

About the Author

Visit My Website SisirBindu

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন