জন্ম নিবন্ধন যাচাই - জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড 2022

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি নিয়ে সাজানো হয়েছে এই পোস্টটি। online check birth certificate bd  বা আপনি যদি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই ব্যবস্থা সম্পর্কে না জেনে থাকেন তাহলে পড়তে থাকুন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড | জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত ।


জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার নিয়ম - online check birth certificate bd - birth certificate online check bd


জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম - jonmo nibondhon online check

জন্মনিবন্ধন অনলাইন চেক করার নিয়ম খুব সোজা। অনলাইন বার্থ সার্টিফিকেট চেক জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করতে হলে যার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন আপনাকে অবশ্যই তার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও জন্ম তারিখ জানতে হবে তাহলেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখতে পারবেন।


জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই - জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে হলে প্রথমেই আপনাকে বাংলাদেশ সরকারের অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য ব্যবস্থা বা Online BRIS এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। br lgd gov bd এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে এই http://everify.bdris.gov.bd লিংকে ক্লিক করুন, তাহলে নিচের মত পেইজ আসবে ।


জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার নিয়ম - online check birth certificate bd - birth certificate online check bd


এরপর ১নং চিহ্নিত ঘরে যার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন তার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরঃ প্রবেশ করান। এরপর ২নং চিহ্নিত ঘরে ঐ ব্যক্তির জন্ম তারিখ প্রবেশ করান। (উদাহরণ- 19860915428117351) উপরের চিত্রে দেখুন কীভাবে জন্ম তারিখ প্রবেশ করাতে হবে।

যদি উপরের চিত্রের মত জন্ম তারিখে বসান তাহলে নিচের ছবির মত এরর ম্যাসেজ দেখতে পাবেনঃ


online check birth certificate bd


উপরের ছবি দেখতে বুঝতেই পারছেন যে, সারা জীবন যেভাবে জন্ম নিবন্ধন নম্বরঃ লিখে এসেছেন, জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার সময় তা উলটো করে লিখতে হবে। মানে শুরুতে বছর এরপর মাস এরপর দিন লিখতে হবে জন্ম নিবন্ধন যাচাই yyyy mm dd। মানে 1995-12-31 এভাবে। জন্ম সনদ ডাউনলোড করতে সব শেষে ভেরিফাই বাটনে ক্লিক করুন।

এখন উপরে দেখতে পাচ্ছেন যার জন্ম নিবন্ধন যাচাইকরণ করেছি তার সমস্ত তথ্য চলে এসেছে নিচের চিত্রের মতঃ


birth certificate online check bd


এভাবে জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন যদি Matching birth records not found লেখাটি দেখতে পান ভেরিফাই বাটনে ক্লিক করার পর, তাহলে বুঝবেন যার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে চাচ্ছেন তার জন্ম নিবন্ধনের নাম্বার ও জন্ম তারিখ এ দুটির মধ্যে কোথাও ভুল রয়েছে।


ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই | বার্থ সার্টিফিকেট চেক

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে চেক করার নিয়ম জানতে পেরেছেন আশা করি। http://everify.bdris.gov.bd এভাবে online birth certificate check করতে পারেন। আশা করছি আর এখন jonmonibondhon online check বা online check birth certificate bd লিখে গুগল সার্চ করতে হবে না আপনাকে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড 2022 

আপনি যদি উপরে দেখানো নিয়ম অনুসারে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাইকরণ অনলাইনে করতে পারেন, তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল। এছাড়াও আপনি আপনার ইউনিয়ন, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশন অফিস থেকে জন্ম সনদের ডিজিটাল কপি সংগ্রহ করতে পারেন।

br lgd gov bd থেকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে, উপরের চিত্রটি আপনার স্ক্রিনে প্রদর্শিত হওয়ার পরে, আপনি প্রিন্ট কমান্ড (ctrl + P) দিয়ে আপনার কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট টু পিডিএফ (PDF) নির্বাচন করে এটি একটি PDF ফাইল হিসাবে সংরক্ষণ করতে পারেন। আর যদি আপনার কম্পিউটারে Print to PDF অপশন না থাকে তাহলে আপনার কম্পিউটার এ প্রিন্টার থাকলে, আপনি জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপিটি প্রিন্ট করে নিতে পারেন এবং ভবিষ্যতের জন্য সংরক্ষণ করতে পারেন।

আর যদি আপনি মোবাইলে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপিটি সেভ করে রাখতে চান তাহলে যাচাই করার পর একটি স্ক্রিনশট দিয়ে রেখে দিন। এছাড়া জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার আলাদা কোনো উপায় নেই এখন পর্যন্ত।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই ওয়েবসাইটে কি কি তথ্য দেওয়া থাকে?

আপনি উপরের ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন, অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করণ ওয়েবসাইটে যে ব্যক্তি জন্ম নিবন্ধন চেক করা হচ্ছে সেই ব্যক্তির নাম, ঠিকানা, পিতামাতার নাম, লিঙ্গ, জাতীয়তা রয়েছে। জন্ম সনদ কখন তৈরি করা হয়েছিল এবং কোথা থেকে জন্ম সনদ তৈরি করা হয়েছিল সে সম্পর্কেও আপনি তথ্য পাবেন।

আজ আপনি অনলাইনে আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করেন, তাহলে আপনি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাইকরণ ওয়েবসাইটে আজ পর্যন্ত আপনার বয়স কত বছর, কত মাস এবং কত দিন এই ধরনের তথ্যও দেখতে পাবেন।

শুধুমাত্র নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই

Birth certificate online verification-  শুধুমাত্র ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনে শুধুমাত্র নামের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার সুযোগ রয়েছে। অনলাইনে সাধারণ মানুষের জন্য নাম দিয়ে জন্ম সনদ যাচাই করার সুযোগ নেই।

এছাড়া যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে যায় অথবা নিবন্ধন নাম্বার জানা না থাকে তাহলে আপনার নিকটবর্তী ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে আপনার নাম সার্চ করে নিবন্ধন নম্বরটি জেনে নিতে পারেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন তথ্য না পাওয়ার কারণ

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন না পাওয়ার সম্ভাব্য কারণ হতে পারে যদি আপনার জন্ম 01/01/2001 এর পূর্বে হয়ে থাকে তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধন টি অনলাইন bdris এর ডাটাবেজে নেই।

যদি এমন সমস্যা হয় তাহলে সমাধান করার জন্য আপনাকে নতুনভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে হবে। আরো জানতে পড়ুন- জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে যা করবেন। আশা করি আপনার সমস্যা ১ দিন এর মধ্যেই সমাধান হয়ে যাবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার উপায় (Jonmo Nibondhon Songsodhon)

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার পরে যদি দেখতে পান আপনার নিবন্ধন সনদে কোন তথ্য ভুল রয়েছে, তাহলে দ্রুত তা সংশোধনের জন্য আবেদন করে সংশোধন  করে ফেলুন। কারণ জন্ম নিবন্ধন সনদে ভুল থাকলে তা পরবর্তীতে বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে।

বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করা ঝামেলাপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে, আপনি https://bdris.gov.bd/br/correction ওয়েবসাইটে গিয়ে সেখানে দেওয়া নির্দেশনাগুলো ফলো করে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার আবেদন করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন যাচাই

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য আবেদন করার পরে জন্ম সনদ সংশোধন হয়েছে কিনা তা যাচাই করতে পারবেন অনলাইন থেকেই। কিভাবে করবেন?

সাধারণভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করার মতো প্রথমে - everify.bdris.gov.bd এ যান। তারপর আপনি জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিয়ে অনুসন্ধান করুন। সংশোধন করা হলে, আপনি পর্দায় সংশোধিত তথ্য দেখতে পাবেন। আপনি চাইলে আপনার মোবাইলেও চেক করতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত আরো বিভিন্ন টিপস, পরামর্শ ও তথ্য জানতে পড়ুন- জন্ম নিবন্ধন

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার নিয়ম

  • প্রথমে জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন https://bdris.gov.bd/  জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন মেন্যুতে ক্লিক করুন।
  • নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার জন্ম নিবন্ধন বের করুন
  • আপনি যে ইউনিয়ন বা পৌরসভায় জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন সেই নিবন্ধন কার্যালয়ের ঠিকানা বাছাই করুন
  • তারপর ইংরেজি তথ্যসমূহ যুক্ত করুন ঠিকানা তথ্যসমূহ ইংরেজিতে লিখুন
  • আবেদনকারীর তথ্য প্রদান করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত প্রশ্ন ও উত্তর

জন্ম নিবন্ধন কি?
জন্ম নিবন্ধন হলো জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪ (২০০৪ সনের২৯ নং আইন) এর আওতায় একজন মানুষের নাম, লিঙ্গ, জন্মের তারিখ ও স্থান, বাবা-মায়ের নাম, তাদের জাতীয়তা এবং স্থায়ী ঠিকানা নির্ধারিত নিবন্ধক কর্তৃক রেজিস্টারে লেখা বা কম্পিউটারে এন্ট্রি প্রদান এবং জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রদান করা।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই apps কোনটি?
জন্ম নিবন্ধন যাচাই apps বা ওয়েবসাইট হলো everify.bdris.gov.bd‌

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড | অরজিন্যাল জন্ম নিবন্ধন দেখব কিভাবে?
আমি অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে এই ধরনের আসল জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার কোন উপায় নেই। এটি নেয়ার জন্য আপনাকে ইউনিয়ন পরিষদ বা কাউন্সিলরের অফিসে যোগাযোগ করতে হবে সেখানে বিস্তারিত জানতে পারবেন। আশা করি আপনাকে আর অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখব এমন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতে হবে না। কখনো ভুয়া জন্ম নিবন্ধন তৈরি করবেন না, এটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে http://everify.bdris.gov.bd/ এখানে ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন কি কি কাজে লাগে?
জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই জন্ম নিবন্ধন বিভিন্ন কাজে লাগে যেমনঃ

  • বিবাহ নিবন্ধন
  • পাসপোর্ট ইস্যু
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি
  • ব্যাংক একাউন্ট খোলা
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু
  • ভোটার তালিকা প্রণয়ন
  • জমি রেজিষ্ট্রেশন
  • বাড়ির নক্সা অনুমোদন প্রাপ্তি
  • গ্যাস, পানি, টেলিফোন ও বিদ্যুৎ সংযোগ প্রাপ্তি
  • ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (টিআইএন) প্রাপ্তি
  • ঠিকাদারী লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্তি
  • সরকারী, বেসরকারী বা স্বায়ত্বশাসিত সংস্থায় নিয়োগদান
  • ট্রেড লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • আমদানি ও রপ্তানী লাইসেন্স প্রাপ্তি
  • জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তি।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করা যাবে কি?
br lgd gov bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের কার্যালয় বরাবর অনলাইনেই জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই পোস্ট টি শুরু থেকে পড়ুন jonmo nibondhon tottho jachai করতে।

১৬ ডিজিট বা ১৭ ডিজিটের কম জন্ম নিবন্ধন নম্বর কিভাবে ১৭ ডিজিট করা যাবে?
আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিট এর হলে অর্থাৎ ১৭ ডিজিটের কম হলে, প্রথম ১১ ডিজিট এর পর ০ (শুন্য) যুক্ত করে ১৭ ডিজিট করতে পারবেন।

পরিশেষ

আশা করি পোস্টটি আপনার ভালো লেগেছে উপরের স্টেপ গুলো অনুসরণ করে আপনি খুব সহজেই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন, অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url